ভারতে পূজা উদ্ধোধন নিয়ে সমালোচনায় পড়েছেন বাংলাদেশের অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান। এ নিয়ে তাকে ফেসবুক লাইভে এসে হত্যার হুমকি দেয়া হয়। এমন পরিস্থিতিতে এ অলরাউন্ডারের বাড়তি নিরাপত্তা হিসেবে সঙ্গে গানম্যান দেয় বিসিবি।

বুধবার সকালে সাকিব মিরপুরে আসেন অনুশীলন করতে। সেসময় তার সঙ্গে একজন গানম্যানকে দেখা যায়।বিসিবির পক্ষ থেকে সাকিবের নিরাপত্তার জন্য গানম্যান দেয়া হয়েছে বলে গণমাধ্যমকে নিশ্চিত করেন সংস্থাটির প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা নিজাম উদ্দিন চৌধুরী। 

এ নিয়ে নিজাম উদ্দিন চৌধুরী গণমাধ্যমকে বলেন, এটা বাড়তি নিরাপত্তার জন্য। যেহেতু একটা অনাকাঙ্ক্ষিত ঘটনা ঘটেছে, সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে একটা জিনিস এসেছে, তাই সাময়িকভাবে একটু সাবধানতা অবলম্বন করা।

তবে এবার এক বছর নিষেধাজ্ঞা শেষে দেশে ফেরার পর তাকে ঘিরে শুরু হয়েছে তিনটি বিতর্ক। দেশে ফেরার পরদিন স্বাস্থ্যবিধি না মেনে একটি সুপারশপ উদ্বোধন করা।

এরপর বেনাপোল সীমান্ত দিয়ে কলকাতা যাওয়ার পথে সাকিবের হাত লেগে এক ভক্তের মোবাইল পড়ে যাওয়া নিয়ে দ্বিতীয় বিতর্ক শুরু হয়।  এ নিয়ে সাকিব ভিডিও বার্তায় বলেছেন যে, ওই ভক্ত তার অনুমতি ছাড়াই এবং স্বাস্থ্যবিধি না মেনে অনেকটা গায়ের ওপর ওঠে ছবি তোলার চেষ্টা করেছেন। এ সময় তাকে সরিয়ে দিতে গেলে হাত লেগে ওই ব্যক্তির ফোন পড়ে যায়।

সবশেষ বিতর্কের চূড়া স্পর্শ করে সাকিবের কলকাতায় পূজা উদ্বোধনের খবরে। অনেকেই ক্ষোভ প্রকাশ করতে থাকেন এ নিয়ে। এমনকি এজন্য তাকে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকের লাইভে এসে প্রাণনাশের হুমকি দেন সুনামগঞ্জের এক যুবক। পরে অবশ্য তাকে গ্রেফতার করে র‍্যাব। এরপর ইউটিউবে ‘পূজা উদ্বোধন করিনি’ বলে জানান সাকিব।

বাংলাদেশে ক্রিকেটের কারও সঙ্গে গানম্যান দেওয়া অবশ্য এবারই প্রথম নয়। এর আগে হোলি আর্টিজেনে জঙ্গি হামলার পর জাতীয় দলের সাবেক কোচ চন্ডিকা হাথুরুসিংহেসহ অন্য বিদেশি কোচদের নিরাপত্তায় সার্বক্ষণিক গানম্যান নিয়োগ করেছিল বিসিবি।