অক্টোবরে আওয়ামী লীগের ২১তম জাতীয় সম্মেলনের কথা থাকলেও কবে হবে সেই বার্তা আসছে আওয়ামী লীগের আগামী কার্যনির্বাহী বৈঠক থেকে।

আওয়ামী লীগের জাতীয় সম্মেলন হয় তিন বছর পর পর। ২০১৬ সালের ২৩ অক্টোবর সর্বশেষ সম্মেলনে সভাপতি পদে শেখ হাসিনা টানা অষ্টমবারের মতো পুনঃনির্বাচিত হন, তবে সাধারণ সম্পাদক পদে নতুন মুখ এসেছিলেন ওবায়দুল কাদের।

আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কমিটির তিন বছরের মেয়াদ পূর্তি হচ্ছে আগামী অক্টোবরে।

মার্চে আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্যদের এই বৈঠকের পর দলের দপ্তর সম্পাদক আবদুস সোবহান গোলাপ স্বাক্ষরিত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, “আওয়ামী লীগ যথাযথ মর্যাদায় জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী উদযাপন ও সংগঠনের জাতীয় কাউন্সিলের প্রস্তুতিকে সামনে রেখে দেশব্যাপী সাংগঠনিক কার্যক্রম জোরদার করার লক্ষ্যে আটটি টিম গঠন করার সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেছে।

দলের উপদেষ্টামণ্ডলী, সভাপতিমণ্ডলী এবং কেন্দ্রীয় কমিটির নেতৃবৃন্দের সমন্বয়ে গঠিত এই টিমসমূহ আটটি   সাংগঠনিক বিভাগের কর্মকাণ্ড পর্যবেক্ষণ ও গতিশীল করবে।

দলের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের কয়েকবার সঠিক সময়ে সম্মেলন হওয়ার ঘোষনা দিলেও মেয়াদ পূর্ণ হওয়ার সময় যত ঘনিয়ে আসছে সম্মেলন তোরজোর ততই ঝিমিয়ে পড়েছে।

এই মধ্যে আওয়ামী লীগের এক শীর্ষ নেতা বিডিপলিটিকাকে বলেন, “সম্মেলন কবে হবে সেই বিষয়টি আপনারা আওয়ামী লীগের আগামী ওয়ার্কিং কমিটির বৈঠক থেকেই জানতে পারবেন। বৈঠকে সম্মেলন নিয়ে একটা কনক্রিট সিদ্ধান্ত আসবে।