কোভিড-১৯ মহামারী মোকাবেলায় পশ্চিমা বিশ্ব ব্যর্থ হয়েছে বলে দাবি করেছেন ইরানের সর্বোচ্চ ধর্মীয় নেতা আয়াতু্ল্লাহ আলি খামেনি।

তিনি রোববার করোনা মোকাবেলাবিষয়ক জাতীয় টাস্কফোর্সের বৈঠকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে যুক্ত হয়ে এ কথা বলেন। খবর আল অ্যারাবিয়া ও পার্স টুডের।

খামেনি বলেন, করোনার সময়ে তিনটি ক্ষেত্রে পাশ্চাত্যের ব্যর্থতা স্পষ্ট হয়েছে। সেগুলো হচ্ছে– ব্যবস্থাপনা, সামাজিক দর্শন ও নৈতিকতার ক্ষেত্রে তারা ব্যর্থতার পরিচয় দিয়েছে।

তিনি বলেন, পাশ্চাত্য ও পাশ্চাত্যপন্থীরা এসব ব্যর্থতা ঢেকে রাখতে চাচ্ছে। কিন্তু তাদের ব্যর্থতার নানা দিক বিশ্লেষণ করে তা তুলে ধরা দরকার। কারণ এসব তথ্য জানার ওপর বিভিন্ন জাতির ভবিষ্যৎ নির্ভর করছে।

খামেনি বলেন, পাশ্চাত্যের সামাজিক দর্শনও ব্যর্থ হয়েছে। পাশ্চাত্যের সামাজিক দর্শন বৈষয়িক উপাদান ও অর্থ-সম্পদের ওপর নির্ভরশীল। এ কারণে পাশ্চাত্যের দেশগুলো বৃদ্ধ, বেশি অসুস্থ, দরিদ্র ও প্রতিবন্ধীদের বাঁচানোর বিষয়টিকে গুরুত্ব দিচ্ছে না।

করোনাভাইরাসে সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে যুক্তরাষ্ট্র। দেশটিতে ৮০ হাজারের বেশি মানুষের মৃত্যু হয়েছে এই মহামারীতে।

সেদিকে ইঙ্গিত করে খামেনি বলেন, করোনাভাইরাস তুলনামূলক দেরিতে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র ও ইউরোপে গেছে। তারা এই ভাইরাস মোকাবেলায় প্রস্তুতি নেয়ার সুযোগ পেয়েছিল। কিন্তু তারা প্রত্যাশিত ব্যবস্থা নিতে ব্যর্থ হয়েছে। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র ও ইউরোপের কয়েকটি দেশে করোনাভাইরাসে মৃত্যু ও শনাক্তের বিশাল সংখ্যা এবং এসব দেশে বেকারত্বসহ মানুষের নানা সমস্যা তাদের এই ব্যর্থতারই প্রমাণ বহন করছে।