বিশ্বজুড়ে ছড়িয়ে পড়েছে করোনাভাইরাস। আর এই মহামারি ছড়ানোর জন্য আঙুল উঠছে চীনের বিরুদ্ধে। এবার চীনের জিনপিং সরকারের বিরুদ্ধে ২০ ট্রিলিয়ন ডলারের মামলা দায়ের করলেন এক মার্কিন আইনজীবী। টেক্সাসের আদালত এই মামলা এরই মধ্যে গ্রহণ করেছে।

মার্কিন আইনজীবীর সঙ্গে জোট বেঁধে চীনের সেনা, ইউহানের জীবাণু গবেষণা কেন্দ্রের বিরুদ্ধেও মামলা দায়ের করেছে মার্কিন প্রতিষ্ঠান ফ্রিডম ওয়াচ ও বাজ ফটোস। তাদের অভিযোগ, কোনো প্রাকৃতিক বিবর্তন নয়, বরং চীনের গবেষণাগারেই দীর্ঘদিন ধরে এই জীবাণু তৈরি করা হচ্ছিল। আর সেই মারণ জীবাণুর কামড়ে এখন বিশ্ববাসীর প্রাণ ওষ্ঠাগত।

আদালতে করা অভিযোগে বলা হয়েছে, প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসটি চীন ‘যুদ্ধের জৈবিক অস্ত্র’ হিসেবে তৈরি করেছে। চীনের ইচ্ছা বা অনিচ্ছায় এটি বিশ্বজুড়ে ছড়িয়ে পড়ে। ফলে মার্কিন আইন লঙ্ঘনের পাশাপাশি আন্তর্জাতিক আইন, চুক্তি ও নিয়ম লঙ্ঘন হয়েছে।

অভিযোগে আরো বলা হয়েছে, মার্কিন সেনা অথবা যারা চীনের বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়াতে পারে, তাদের ধ্বংস করতেই এই মারণ ভাইরাস তৈরি করেছে চীন। ইউহানের ল্যাবরেটরি থেকে এই ভাইরাস ছড়িয়ে পড়েছে।

মামলার পাশাপাশি চীনের থেকে ২০ ট্রিলিয়ন ডলার ক্ষতিপূরণ দাবি করা হয়েছে। যা চীনের সমগ্র অর্থনীতির চেয়েও বেশি। করোনাভাইরাস সংক্রমণের জন্য এর আগেও মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র স্পষ্ট ভাষায় চীনকে দায়ী করেছিল। মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প কয়েকদিন আগে এটিকে চাইনিজ ভাইরাস হিসেবে আখ্যায়িত করেছিলেন।

সূত্র: সংবাদ প্রতিদিন।