ব্যাটিং পরামর্শক হয়ে বাংলাদেশ ক্রিকেটে ফিরছেন সাবেক কোচ জেমি সিডন্স। দায়িত্ব নিতে বুধবার বিকেলে ঢাকায় পা রাখছেন তিনি। শুরুতে তার কাজের জায়গা চূড়ান্ত ছিল না। বিসিবি যখন যেখানে সুযোগ পাবে সেখানেই তাকে কাজে লাগানোর কথা ছিল। তবে বোর্ড এখন তাকে জাতীয় দলের সঙ্গে যুক্ত করতে চাইছে। সেক্ষেত্রে অ্যাশওয়েল প্রিন্সকে হাই পারফরম্যান্সের দায়িত্ব দেওয়া হবে।

বিসিবির সর্বশেষ বোর্ড সভায় সিডন্সের নিয়োগ চূড়ান্ত হয়। মঙ্গলবার ক্রিকেট পরিচালনা বিভাগের চেয়ারম্যান জালাল ইউনুস গণমাধ্যমে বলেছেন, ‘সিডন্সকে মূলত বিসিবির ব্যাটিং কোচ হিসেবে নিয়োগ দেওয়া হয়েছে। আমরা তাকে যখন যেভাবে সুযোগ পাই ব্যবহার করবো। তবে আমরা চাই সে এখন জাতীয় দল নিয়েই বেশি কাজ করুক। তার অভিজ্ঞতা আমরা ব্যবহার করতে পারলে আমাদের ক্রিকেটারদের জন্য ভালো হবে।’

জেমি সিডন্স এর আগে বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দলের প্রধান কোচ হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছিলেন। ২০০৭ সাল থেকে ২০১১ আইসিসি ওয়ার্ল্ড কাপ পর্যন্ত তিনি সাকিব-তামিমদের কোচ ছিলেন। বিশ্বকাপ ব্যর্থতার পর চাকরি হারান। সিডন্স থাকতে চাইলেও বিসিবি তাকে রাখেনি। তবে ব্যাটিং কোচ হিসেবে তার দারুণ দক্ষতার কথা বরাবরই স্বীকার করে নেন মাশরাফি, সাকিব, তামিম, মুশফিকরা। তাদের মতে সিডন্স তাদের ব্যাটিং উন্নতিতে সবচেয়ে বড় ভূমিকা রেখেছিলেন সেই সময়ে।

বাংলাদেশে ফিরতে পেরে দারুণ উচ্ছ্বসিত সিডন্স। এক ভিডিও বার্তায় বলেছিলেন,‘দুই বছর বাংলাদেশে কাটানোর পরিকল্পনা রয়েছে। এই বছরের অক্টোবরেই অস্ট্রেলিয়াতে আমাদের একটি টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ আছে। আমি তরুণ কয়েকজন খেলোয়াড়দের নিয়ে কাজ করতে মুখিয়ে আছি। শুধু জাতীয় দল নয়, জুনিয়র ডেভেলপমেন্ট প্রোগ্রামেও কাজ করবো। আমি আগেও সেখানে কাজ করেছি। সেখানে কাজ করতে আমি ভালোবাসি।’

এদিকে অ্যাশওয়েল প্রিন্সের সঙ্গে বিসিবির চুক্তি চলতি বছরের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ পর্যন্ত। তাকে হাই পারফরম্যান্সের দায়িত্ব দেওয়ার কথা জানালেন জালাল ইউনুস,‘প্রিন্সকে তখন আমরা  হাই পারফরম্যান্স বিভাগের দায়িত্ব দিয়ে দিবো। এছাড়া অন্য কোথা দেওয়া যায় সেটি নিয়ে আমরা ভাববো। আমাদেরতো অনেক কোচ লাগবে।’