বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বুয়েট) সিভিল ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের তৃতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী ফারদিন নূর পরশ হত্যাকাণ্ডকে ভিন্ন খাতে প্রবাহিত করার চেষ্টা করা হচ্ছে বলে মন্তব্য করেছেন গণঅধিকার পরিষদের সদস্য সচিব ও ডাকসুর সাবেক ভিপি নুরুল হক নুর।

রোববার (১৩ নভেম্বর) রাতে ফারদিন হত্যা প্রসঙ্গে ঢাকা পোস্টের সঙ্গে আলাপকালে তিনি এ মন্তব্য করেন। এসময় সঠিক তদন্ত করে দ্রুত সময়ের মধ্যে হত্যাকারীদের গ্রেপ্তারের দাবি জানান তিনি।

নুরুল হক নুর বলেন, বুয়েটের মেধাবী শিক্ষার্থী ফারদিন হত্যার বিষয়টি আমার কাছে মনে হচ্ছে ভিন্ন খাতে প্রবাহিত করার চেষ্টা করা হচ্ছে। কারণ এখানে তাকে ভিলেন হিসেবে উপস্থাপনের চেষ্টা চলছে। তিনি মাদকাসক্ত ছিলেন, মাদক কিনতে গিয়ে মাদক কারবারিদের হাতে খুন হয়েছেন— এমন উপস্থাপনের একটা চেষ্টা চলছে।

ফারদিন প্রতিবাদী শিক্ষার্থী ছিল উল্লেখ করে ডাকসুর সাবেক এই ভিপি বলেন, বুয়েটের ছাত্ররাও তাকে একজন মেধাবী, সংস্কৃতিমনা, অন্যায়ের বিরুদ্ধে প্রতিবাদী শিক্ষার্থী হিসেবে জানে। এমনকি আবরার ফাহাদ হত্যাকাণ্ডের পর বিশেষ করে বুয়েটে ছাত্র রাজনীতি বন্ধে তার সক্রিয় অবস্থান দেখা গেছে। কিছুদিন আগেও যখন ছাত্রলীগের ব্যানারে মূলত ছাত্রলীগের রাজনীতিকে প্রতিষ্ঠা করার জন্য অপচেষ্টা করা হয়েছিল সেটি নিয়েও ফারদিন এবং তার বন্ধুদের কথা বলতে দেখেছি।

নুর আরও বলেন, পুরো বিষয়টি আমাদের কাছে ধোঁয়াশা মনে হচ্ছে। তাই আমরা আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর প্রতি জোরালো অনুরোধ জানাব— এই ঘটনার সঠিক তদন্ত করে দ্রুত সময়ের মধ্যে প্রতিবেদন দিতে হবে এবং ফারদিনের হত্যাকারীদের গ্রেপ্তার করতে হবে। এই প্রতিবেদন সাগর-রুনির মতো ৯৩ বার যেন পেছানো না হয়।

বুয়েটের শিক্ষার্থীদের সোচ্চার হওয়ার আহ্বান জানিয়ে তিনি বলেন, বুয়েটের শিক্ষার্থীকে বলব আপনাদের বিশ্ববিদ্যালয়ের সহপাঠীকে হত্যা করা হয়েছে। এ হত্যার বিচারের দাবিতে আপনাদের সোচ্চার হতে হবে। বুয়েটের মেধাবী শিক্ষার্থীদের এভাবে হত্যার পর যদি বিচার না হয়, বিচারহীনতার সংস্কৃতি যদি এভাবে চলতে থাকে তাহলে এ দেশে আমি আপনি কে নিরাপদ। কাজেই আমাদের এ ঘটনার দিকে চোখ রাখতে হবে এবং ন্যায়বিচারের জন্য আমরা প্রতিবাদ মুখর থাকব।