বিএনপির জ্যেষ্ঠ যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী বলেছেন, ঈদযাত্রায় পরিবার-পরিজন নিয়ে মানুষের কষ্টের সীমা নেই। আর এটাইকে সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের সাহেব বলছেন, এবারের ঈদযাত্রা স্বস্তিদায়ক ও আনন্দঘন। ঈদযাত্রা নিয়ে ওবায়দুল কাদের সাহেবের এই বক্তব্য দুঃখ দুর্দশাগ্রস্ত মানুষের সাথে নিষ্ঠুর রসিকতা। আওয়ামী লীগের কাজই হলো মানুষের দুঃখ দুর্দশা নিয়ে ইয়ার্কি করা, তামাশা করা।

আজ রবিবার নয়া পল্টনে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ কথা বলেন।

রিজভী বলেন, নিশিরাতের ভোটের সরকারের মন্ত্রীদের কথাতেই প্রমাণিত হয়, রোম পুড়ে ছারখার হয়ে গেলেও নিরোর মতো শাসকরা বাঁশি বাজায়। ওবায়দুল কাদের সাহেবরা এই মহাদুযোর্গ ও পথে পথে মহাদুযোর্গের মধ্যে সেই আনন্দের বাঁশিই বাজাচ্ছেন।

রবিবার সড়কে যানজট থাকায় দুঃখ প্রকাশ করেছেন সেতুমন্ত্রী। এ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, দুঃখ প্রকাশ করে উনি কী বোঝাতে চাইছেন? উনি এর আগে তো মানতেই চাননি। গতকালই বলেছেন যে, ঈদযাত্রা আনন্দদায়ক। একটি শাসকগোষ্ঠীর অংশ হলেন ওবায়দুল কাদের সাহেব। তাদের তো একটা সমন্বিত পরিকল্পনা থাকবে। সেটা নেই, খালি বড় বড় কথা বলছেন মিডিয়ার সামনে। কালকে যেটা বলছেন, আজকে সেটা নেই।

সংবাদ সম্মেলনে অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা কাউন্সিলের সদস্য নজমুল হক নান্নু, যুগ্ম মহাসচিব খায়রুল কবির খোকন, কেন্দ্রীয় নেতা আবদুস সালাম আজাদ, মুনির হোসেন, বেলাল আহমেদ ও আবেদ রাজা।