পাকিস্তান ক্রিকেট দলের প্রধান কোচ হতে যাচ্ছেন সাবেক অধিনায়ক মিসবাহ-উল-হক। বিশ্বকাপে প্রত্যাশিত পারফরম্যান্স না হওয়ায় প্রধান কোচ মিকি আর্থারসহ কোচিং স্টাফদের চুক্তি নবায়ন করেনি পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড (পিসিবি)।

এদিকে পাকিস্তানের স্পোর্টস ভিত্তিক সংবাদ মাধ্যম ক্রিকেট পাকিস্তান এক প্রতিবেদনে উল্লেখ করে, প্রধান কোচ মিকি আর্থারের স্থলাভিষিক্ত হতে পারেন মিসবাহ-উল-হক। আর পেস বোলিং কোচ আজহার মাহমুদের পরিবর্তে নিয়োগ পেতে পারেন মোহাম্মদ আকরাম।

পাকিস্তানের হয়ে ৭৫টি টেস্ট ম্যাচ খেলে ১০ সেঞ্চুরিতে ৫ হাজার ২২২ রান করেন মিসবাহ-উল-হক। আর ওয়ানডেতে ১৬২ ম্যাচে ৫ হাজার ১২২ রান করেন। এছাড়া ৩৯টি টে-টোয়েন্টিতে ৭১৫ রান সংগ্রহ করেন মিসবাহ।

পেস বোলিং কোচ হওয়ার দৌড়ে এগিয়ে থাকা মোহাম্মদ আকরাম পাকিস্তানের হয়ে ৯ টেস্টে ১৭ উইকেট শিকার করেন। এছাড়া ২৩ ওয়ানডে ম্যাচে শিকার করেন ১৯ উইকেট। পাকিস্তান সুপার লিগে (পিএসএল) পেশোয়ার জালমির বর্তমান প্রধান কোচ হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন ৪৪ বছর বয়সী এই পেসার।

বিশ্বকাপে প্রত্যাশিত পারফরম্যান্স করতে পারেনি এশিয়ার কোনো দল। ভারত সেমিফাইনালে খেললেও নকআউট পর্বের আগেই বিদায় নেয় আফগানিস্তান, পাকিস্তান, বাংলাদেশ ও শ্রীলংকা।

বিশ্বকাপে বাজে পারফরম্যান্সের কারণে অধিনায়কত্ব থেকে সরফরাজ আহমেদকে সরিয়ে দেয়ার পক্ষে মত দিয়েছিলেন কোচ মিকি আর্থার। অধিনায়ক সরফরাজকে সরানোর প্রস্তাব দিয় নিজেই চাকরি হারালেন পাকিস্তান জাতীয় দলের এ প্রধান কোচ।

বুধবার এক বিবৃতিতে পিসিবি চেয়ারম্যান এহসান মানি জানান, ‘পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ডের হয়ে আমি আন্তরিকভাবে ধন্যবাদ জানাতে চাই মিকি আর্থার, গ্রিয়ান্ট ফ্লাওয়ার, গ্রান্ট লুডেন ও আজহার মাহমুদকে। কোচ এবং সাপোর্ট স্টাফ হিসেবে মেয়াদকালে কঠোর পরিশ্রম ও নিজ-নিজ দায়িত্বপালনের জন্য প্রত্যেককে ধন্যবাদ। আগামিদিনের জন্য অনেক শুভেচ্ছা রইল।’

আগামী ১৫ আগস্ট পর্যন্ত পিসিবির সঙ্গে চুক্তি ছিল প্রধান কোচ মিকি আর্থারসহ সাপোর্টিং স্টাফদের।