ক্যাসিনো সম্রাট খ্যাত যুবলীগ ঢাকা মহানগর দক্ষিণের বহিষ্কৃত সভাপতি ইসমাইল হোসেন চৌধুরী সম্রাটকে ঢাকা মহানগর হাকিম (সিএমএম) আদালতে হাজির করা হয়েছে।

মঙ্গলবার (১৫ অক্টোবর) দুপুর পৌনে ১২টায় তাকে ঢাকার সিএমএম আদালতে হাজির করে পুলিশ। রমনা থানার অস্ত্র ও মাদক আইনের পৃথক দুই মামলায় তাকে গ্রেফতার দেখানো পূর্বক ২০ দিনের রিমান্ড শুনানি অনুষ্ঠিত হবে।

ঢাকা মহানগর দক্ষিণের যুবলীগের বহিষ্কৃত সভাপতি ইসমাইল হোসেন চৌধুরী সম্রাটের বিরুদ্ধে রমনা থানায় দায়ের করা দুই মামলায় রিমান্ড শুনানির দিন ধার্য রয়েছে আজ।

আদালতের সাধারণ নিবন্ধন কর্মকর্তা (জিআরও) নিজাম উদ্দিন জানান, গত ৯ অক্টোবর এ তারিখ নির্ধারণ করেন ঢাকা মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট আদালত। এর আগে ৭ অক্টোবর (সোমবার) সম্রাটের বিরুদ্ধে অস্ত্র ও মাদকের আইনে দায়ের করা দুই মামলার ১০ দিন করে রিমান্ডের আবেদন করেন তদন্তকারী কর্মকর্তা। তবে ৯ অক্টোবর দিন ধার্য থাকলেও ওই দিন সম্রাট অসুস্থ থাকায় রিমান্ড শুনানির জন্য পরবর্তী তারিখ ১৫ অক্টোবর ঠিক করেন আদালত।

গত ৭ অক্টোবর সম্রাটের বিরুদ্ধে রমনা থানায় মামলা দুটি দায়ের করেন র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব)-এর নায়েব সুবেদার আব্দুল খালেক।

উভয় মামলার এজাহারে বলা হয়েছে, মতিঝিল, আরামবাগ, ফকিরাপুল ও পল্টনসহ রাজধানীতে ১০টি ক্লাবে ক্যাসিনো ব্যবসা ছিল সম্রাটের। সবার কাছে তিনি ‘ক্যাসিনো সম্রাট’ হিসেবে পরিচিত ছিলেন। পাশাপাশি দলীয় পদ অপব্যবহার করে চাঁদাবাজি ও টেন্ডারবাজি করতেন। কেউ চাঁদা দিতে না চাইলে তাকে ধরে নিয়ে নির্যাতন করতো তার ক্যাডাররা। সম্রাটের কার্যালয় থেকে র‌্যাব অবৈধ অস্ত্র, মাদকসহ নির্যাতন করার ইলেকট্রিক শক মেশিন উদ্ধার করে। মাদক মামলায় সম্রাটের পাশাপাশি তার সঙ্গে আটক আরমানকেও আসামি করা হয়েছে।