ভারতের উত্তর-পূর্বাঞ্চলীয় সিকিম রাজ্যের ভারত-চীন সীমান্তে উত্তেজনা দেখা দিয়েছে। শনিবার উত্তর সিকিমের নাকুলায় সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়েন দুই দেশের সেনা সদস্যরা। হাতাহাতি এবং ঘুষোঘুষিতে দু’পক্ষের বেশ কয়েক জন আহতও হন। তবে সংঘর্ষ বড় আকার ধারণ করতে পারেনি। স্থানীয় স্তরেই শেষ পর্যন্ত ঝামেলা মিটে যায় বলে জানা গেছে।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক ভারতীয় সেনাবাহিনীর দুই কর্মকর্তা এই ঘটনার কথা সংবাদমাধ্যমে প্রকাশ করেছেন।

ওই দুউ সেনা কর্মকর্তা জানান, সিকিম সীমান্তের মুগুথাং পেরিয়ে পাঁচ হাজার ফুট উচ্চতায় নাকুলা সেক্টরে দু’পক্ষের প্রায় ১৫০ জওয়ানের মধ্যে সংঘর্ষ বাধে। তাতে চার ভারতীয় জওয়ান ও চীনা সেনাবাহিনীর সাত জন আহত হন।

বিষয়টি নিয়ে একটি সর্বভারতীয় সংবাদমাধ্যমের তরফে সেনাবাহিনীর সদর দফতরে যোগাযোগ করা হলেও, এ ব্যাপারে কিছু জানা নেই বলে সেখান থেকে বার্তা দেয়া হয়। নাকুলায় এই ধরনের ঘটনা সাধারণত ঘটে না বলে জানান সেনাবাহিনীর প্রাক্তন এক কর্মকর্তা।

তবে ভারত ও চীনা সেনাবাহিনীর মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা নতুন নয়। ২০১৭ সালের আগস্টে লাদাখে প্রকৃত নিয়ন্ত্রণরেখার কাছে প্যাংগং লেক এলাকায় পরস্পরের সঙ্গে হাতাহাতিতে জড়িয়ে পড়েন দু’পক্ষের জওয়ানরা। ঘুষোঘুষির পাশাপাশি একে অপরকে লক্ষ্য করে পাথরও ছোড়া হয় সেখানে। ভারত-চীন-ভূটান সীমান্তবর্তী ডোকলামে টানা ৭৩ দিন ধরে দুই দেশের সেনাবাহিনী যখন মুখোমুখি অবস্থান করছিল, ঠিক সেইসময়ই এই ঘটনা ঘটে। তাতে ভারত-চীন দ্বিপাক্ষিক সম্পর্ক তলানিতে এসে ঠেকে।  তবে শেষমেশ শান্তিপূর্ণ ভাবেই অবস্থান উঠে যায়। সূত্র : আনন্দবাজার